মধ্যপ্রদেশে স্কুল পাঠ্যক্রম থেকে মুঘল শাসকদের ইতিহাস বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত

উসামা মাহমুদ

0
255

ভারতীয় হিন্দুত্ববাদীরা মুসলিমদের গৌরবমাখা ইতিহাস বিকৃত করার পাশাপাশি, স্কুলের পাঠ্যতালিকা থেকেও বাদ দিয়ে দিচ্ছে মুসলিম শাসকদের ইতিহাস। পরবর্তী প্রজম্ম যেন জানতেই না পরে ভারতীয় উপমহাদেশ বিনির্মাণে মুসলিমদের কত বড় ভূমিকা ছিল। ইতিমধ্যেই অনেক রাজ্যে মুসলিম শাসকদের ইতিহাস বাদ দিয়েছে হিন্দুত্ববাদী সরকার। এর পরিবর্তে মুসলিম শাসকদের প্রকৃত ইতিহাস বিকৃত করে তাদের দখলদার, হত্যাকারী, ধর্ষণকারী, লুণ্ঠনকারী হিসেবে উপস্থাপন করছে।

এবার মধ্যপ্রদেশ সরকার স্কুল পাঠ্যক্রম থেকে মুঘল শাসকদের গল্প বাদ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে। টিপু সুলতান, সিরাজউদ্দৌলাসহ সমস্ত মুসলিম শাসকদের সম্পর্কে অধ্যায়গুলি বাদ দেওয়া হবে। স্কুল শিক্ষামন্ত্রী হিন্দুত্ববাদী ইন্দর সিং বলেছে, মুঘল সাম্রাজ্য এবং মুঘলদের গল্পগুলি শীঘ্রই পাঠ্যক্রম থেকে পরিবর্তন করা হবে।

মুসলিম শাসনের ৬০০ বছরে মুসলিমরা ভারতীয় উপমহাদেশকে একটি সভ্য, সমৃদ্ধ ও উন্নত অঞ্চল হিসেবে গড়ে তুলেছিলেন। আর এখন সেই ইতিহাসকে বিকৃত করতে, সেগুলো ভেঙ্গে ফেলতে হিন্দুত্ববাদী প্রধানমন্ত্রী ১৩,৪৫০ কোটিরও বেশি রুপি ব্যয়ে আইকনিক সেন্ট্রাল ভিস্তা পুনর্নির্মাণের পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে। সারাদেশে ইতিহাস পাঠ্যক্রম পরিবর্তনের জন্য সরকারী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বর্তমান ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী সরকার নানা কৌশলে ভারতীয় ইতিহাসকে তাদের আদর্শের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের কল্পিত মিথ্যা ধারণাগুলোকে ইতিহাস হিসেবে লিখছে। উগ্র হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠী রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) ইতিহাসকে এমনভাবে পুনর্লিখন করছে, যা হিন্দুদের কাল্পনিক বই পুরাণের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে, এবং হিন্দু শাসনের সময়কালকে মহিমান্বিত করবে।

অন্যদিকে সভ্য ভারতের রুপকার মুসলিম শাসক ও শাসনকে পৈশাচিক হিসেবে তুলে ধরছে। এমনকি অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইতিহাস সম্পূর্ণরূপে মুছে ফেলছে।

বিভিন্ন রাজ্য স্কুলের পাঠ্যক্রমের উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করেছে, বিশেষ করে গুজরাটে; এবং ইতিহাসের বইগুলো মুসলিম বিদ্বেষ, মিথ্যা এবং সম্পূর্ণ মিথ্যা দিয়ে পূর্ণ করেছে।

এই সিদ্ধান্তগুলো হিন্দুত্বের আখ্যানকে আরও এগিয়ে নেওয়ার জন্য বিকৃত করে ইতিহাস শেখানো হচ্ছে। তারা ভারতের মুসলিম শাসকদের অত্যাচারী হিসাবে তুলে ধরছে। মুসলিম শাসকদের নামে অভিযোগ তুলছে যে, তারা মন্দির ধ্বংস করেছিল এবং তাদের অমুসলিম প্রজাদের গণহত্যা করেছিল।

বর্তমানে ভারতের অনেক স্কুলে এই পরিবর্তিত ইতিহাস পড়ানো হচ্ছে। ইতিহাসের এই স্যাফরানাইজেশন তথা গেরুয়াকরণ করে হিন্দুদের মহান এবং মুসলিমদের অত্যাচারী দানব হিসেবে তুলে ধরা হচ্ছে।

হিন্দুত্ববাদীরা যতই চক্রান্ত করুক, মুসলিম প্রজন্ম তাদের বীরত্বগাঁথা ইতিহাস ভুলে যাবে না। বরং ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটবে। হিন্দুত্ববাদীদের মসনদ ভেঙ্গে চুরমার করে দেবে। তাদেরকে লোহার শিকলের বেড়ি পরাবে ইনশাআল্লাহ, জার ভবিষ্যৎবাণী হাদিসে আছে বলে জানিয়েছেন হক্কানী উলামায়ে কেরাম।

আর এই চেতনাকে সামনে রেখে নিজেদের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও ধর্মীয় স্থাপনা তথা নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য তন্ত্র-মন্ত্রের ধোঁকায় না পড়ে মুসলিমদেরকে নববী মানহাজের অনুসরণ করে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের উপদেশও দিয়ে আসছেন সচেতন উলামায়ে কেরাম।


তথ্যসূত্র:
——–
1. Stories of Mughal Rulers Could be Removed from Madhya Pradesh School Curriculum
https://tinyurl.com/2p9a5r95

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন