সীমান্তে বিএসএফের সন্ত্রাস: বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে বৃদ্ধাকে মারধর ও যুবককে গুলি

মুহাম্মাদ ইব্রাহীম

0
476

এবার বাংলাদশে অনুপ্রবেশ করে এক বৃদ্ধা মুসলিম নারীকে মারধর এবং গুলি করে এক যুবককে গুরুতর আহত করেছে ভারতীয় সীমান্ত-সন্ত্রাসী বিএসএফ। গতকাল ১৩ জানুয়ারি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তের টেকেরঘাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন দুপুরে বুরুঙ্গাছড়া গ্রামের পেছনে সীমান্তবর্তী একটি পাহাড়ি জলধারায় গোসল করতে যান অনুফা বেগম নামে এক বৃদ্ধা। এ সময় পাশ্ববর্তী বিএসএফ সদস্যরা ওই নারীকে সীমান্ত এলাকায় গোসল করতে যাওয়ায় বেধড়ক মারধর করে। এ খবর গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে গ্রামের লোকজন এসে বিএসএফের সঙ্গে তর্কে জড়ায়।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিএসএফের ১৫-২০ জনের একটি দল বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বুরুঙ্গাছড়া গ্রামে অনুপ্রবেশ করে। এরপর এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হন দেলোয়ার হোসেন নামের এক যুবক। পরে এলাকাবাসী ঘটনাস্থল থেকে আহত যুবককে উদ্বার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনা এমন সময় ঘটলো, যেদিন চট্টগ্রামের এম এ আজিজ জিমনেসিয়াম মাঠে পঞ্চদশ শিশু-কিশোর সমাবেশে ভারতীয় হাইকমিশনার দাবি করে যে, ভারত-বাংলাদেশ রক্তের সম্পর্ক কেউ ছিন্ন করতে পারবে না। অথচ এই দিনই বাংলাদেশির রক্ত ঝরিয়ে ভারতের আসল চেহারা দেখিয়ে দিলো বিএসএফ।

হিন্দুত্ববাদী ভারত মুখে সব সময় বাংলাদেশকে বন্ধু বলে উল্লেখ্য করলেও, কাজে কর্মে সব সময় শত্রুজ্ঞান করে আসছে। বন্ধুত্বের দোহাই দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ট্রানজিট নিচ্ছে, ইলিশ নিচ্ছে, লাখ লাখ ভারতীয় বাংলাদেশে কাজ করে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার অর্থও হাতিয়ে নিচ্ছে। কিন্তু বিনিময়ে বাংলাদশকে সীমান্তে লাশ উপহার দিচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০০৯ সাল থেকে পাঁচ লক্ষ ভারতীয় নাগরিক অবৈধভাবে বাংলাদেশে কাজ করছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে যেমন: এনজিও, গার্মেন্টস, টেক্সটাইল, আইটি সংস্থায় তারা কর্মরত রয়েছে। কিন্তু বাস্তবে ভারতীয়দের সংখ্যা বহুগুণ বেশি বলে মনে করা হচ্ছে৷ উপার্জিত অর্থ তারা অবৈধ পদ্ধতিতে ভারতে পাঠায়। ২০১২ সালে, বাংলাদেশ ভারতের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনক্ষেত্র হিসেবে পঞ্চম দেশ হিসেবে চিহ্নিত হয়। সে বছর এই ভারতীয় অভিবাসীরা বাংলাদেশ থেকে ৩.৭ বিলিয়ন ইউএস ডলার উপার্জন করে ভারতে পাঠিয়েছে।

এতোকিছুর পরও বাংলাদেশি মুসলিমরা যখন সীমান্ত পার হয়ে শরিয়তে বৈধ ব্যবসায়ের মাল হিসেবে সামান্য গরু আনতে যায়, তখন তাদের গুলি করে হত্যা করা হচ্ছে। এমনকি সীমান্ত নিকটবর্তী নিজ কৃষি জমিতে কাজ করতে গেলেও গুলি করা হচ্ছ বাংলাদেশি মুসলিমদের। আর কিশোরী ফেলানি খাতুনকে তারা গুলি করে কাঁটাতারে ঝুলিয়ে রাখে ঘন্টার পর ঘন্টা, এই হচ্ছে ভারতের কথিত বন্ধুত্বের নমুনা।



তথ্যসূত্র:
——–
১। বাংলাদেশে ঢুকে এক বৃদ্ধাকে মারধর ও যুবককে গুলি করল ভারতীয় সীমান্ত বাহিনী
https://tinyurl.com/5e4rx5vx
২। ভারত-বাংলাদেশ রক্তের সম্পর্ক কেউ ছিন্ন করতে পারবে না : ভারতীয় হাইকমিশনার
https://tinyurl.com/4um258fj
২। বেসরকারি খাতে ভারতীয়দের দাপট-
https://tinyurl.com/24a3x5vd

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন