হান চাইনিজদের বিয়ে করতে উইঘুর নারীদের প্রলোভন দেখাচ্ছে চীন

সাইফুল ইসলাম

0
739
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

উইঘুর মুসলিম জাতিকে নিশ্চিহ্ন করতে সম্ভাব্য সকল ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে কমিউনিস্ট চীন সরকার। সন্ত্রাসবাদী চীন সরকার উইঘুর মুসলিম নারীদের বাধ্য করছে হান চাইনিজ পুরুষদের বিয়ে করতে। আর উইঘুর নারীকে বিয়ে করলে হান চাইনিজদের পুরস্কার হিসেবে নগদ অর্থ ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রদান করছে চীন।

তবে বর্তমানে আরও জঘন্যভাবে এই বিষয়টি বাস্তবায়ন করতে চাচ্ছে চীন সরকার। উইঘুর নারীদের মধ্যে যারা হানদের বিয়ে করবে, এবার সেসব উইঘুর নারীদেরকেও পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে তারা। উইঘুরদের নিয়ে কাজ করা ইরকিন সিদিক এক টুইট বার্তায় উইঘুরদের বরাত দিয়ে বলেন-

১. উইঘুর নারীদের যে হান চাইনিজ বিয়ে করবে, তার কোনো ট্যাক্স দিতে হবে না।
২. উইঘুর-হান দম্পতিকে বিয়ের পরবর্তী ৩ বছরের মধ্যে ৮০ হাজার থেকে ৩৬০ হাজার চাইনিজ ইউয়ান মুদ্রা প্রণোদনা দেওয়া হবে।
৩. হান চাইনিজকে বিয়ে করা উইঘুর নারী যদি কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েট হয়, তবে তাকে বিনা শর্তে চাকরি দেওয়া হবে।
৪. হান চাইনিজকে বিয়ে করে নিজের জাতি পরিচয়ও যে উইঘুর নারী পরিবর্তন করে হান চাইনিজ হবে, তার নিকটাত্মীয়কে কারাগার বা কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্প থেকে মুক্তি দেওয়া হবে।
৫. হান চাইনিজকে বিয়ে করা উইঘুর নারীদের ৩-৫ বছরের ট্যাক্স মওকুফ করা হবে।
৬. হান চাইনিজকে বিয়ে করা উইঘুর নারীরা সুদবিহীন ব্যাংক-লোন নিতে পারবে।
৭. উইঘুর নারীদেরকে বিয়ে করার মতো যুবক উইঘুর পুরুষ নেই বললেই চলে। যারা আছে, তারা হয় মানসিকভাবে অসুস্থ বা সংসার চালানোর মতো চাকরি বা অর্থ-কড়ি নেই।

হান চাইনিজদের বিয়ে করতে বাধ্য করার পাশাপাশি এভাবে বিভিন্ন প্রলোভন দেখানো হচ্ছে উইঘুর নারীদেরকে। ধীরে ধীরে উইঘুর মুসলিম জাতির নাম-নিশানা মুছে ফেলা-ই উদ্দেশ্য তাদের। এমন জঘন্য গণহত্যার পরও কথিত আন্তর্জাতিক বিশ্ব বা জাতিসংঘ কার্যত নীরব ভূমিকা পালন করছে। উইঘুর মুসলিম জাতির পক্ষে আজ কথিত মুসলিম বিশ্বের নেতারাও নেই। বরং পাকিস্তানসহ অন্যান্য মুসলিম অধ্যুষিত দেশগুলোর নেতারা প্রকাশ্যে চীনের উইঘুর দমননীতিকে সমর্থন করেছে।

তাই, উইঘুরদের মুক্তির জন্য এসব কথিত ‘মুসলিম নেতা’-দের দিকে তাকিয়ে থাকা বোকামি ছাড়া আর কিছু হতে পারে না। ইতিহাসের বর্বরতম গণহত্যার কবল থেকে উইঘুরদের মুক্ত করতে ইসলামি ভ্রাতৃত্বের দাবিতে সারাবিশ্বের মুসলিমদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। নববী সুন্নাহ অনুসরণ করে সন্ত্রাসবাদী কমিউনিস্ট চীনের দাম্ভিকতা গুড়িয়ে দিতে হবে।



তথ্যসূত্র:
——–
১. ইরকিন সিদিকের পোস্ট:
https://tinyurl.com/ms8ebwvk

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধমুসলিম যুবকদের প্রতি শাইখ আইমান আয-যাওয়াহিরির আহ্বান: যেভাবে ফিলিস্তিনকে সমর্থন করবেন
পরবর্তী নিবন্ধমধ্যপ্রদেশে মুসলিম বাড়িতে অনুপ্রবেশ, হনুমান মূর্তি স্থাপন ও হিন্দুদের পূজা