কেনিয়ায় ২টি সামরিক ঘাঁটি ও বিস্তীর্ণ এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিলো আশ-শাবাব

- আলী হাসনাত

0
356
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

পূর্ব আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ার প্রতিবেশী কেনিয়ায় সামরিক উপস্থিতির পাশাপাশি বিস্তৃত অঞ্চলের উপর নিয়ন্ত্রণ প্রসারিত করে চলেছেন হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন। গত ২৯শে ডিসেম্বরও কেনিয়ার ২টি সামরিক ঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন তাঁরা।

শাহাদাহ এজেন্সির তথ্যমতে, আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট প্রতিরোধ বাহিনী আশ-শাবাবের যোদ্ধারা কেনিয়ার উত্তর-পূর্ব উজির রাজ্যের রাস্কাম্বোনি শহরে যৌথ এক অভিযান শেষে ঘাঁটিগুলোর নিয়ন্ত্রণ নেন। একইসাথে প্রতিরোধ যোদ্ধারা “আইল অ্যাডো” অঞ্চলেরও সিংহভাগ ভূমির উপর নিয়ন্ত্রণ প্রসারিত করেছেন। এসময় মুজাহিদগণ এই অঞ্চলে কেনিয়ার সরকারি যোগাযোগ সংস্থা সাফারিকম-এর সদর দপ্তরটিও ধ্বংস করে দেন।

স্থানীয় সূত্রমতে, শাবাবের এই অভিযানে কেনিয়ার কয়েক ডজন ক্রুসেডার সৈন্য হতাহত হয়েছে এবং অন্য সৈন্যরা জীবন বাঁচাতে সংঘর্ষের স্থানগুলো ছেড়ে পালিয়েছে। এদিকে আশ-শাবাব এখন পর্যন্ত হতাহতের সুনির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা প্রকাশ করেনি।

কেনিয়ার গারিসা রাজ্যেও এদিন বড় ধরনের একটি সামরিক অপারেশন চালিয়েছেন আশ-শাবাব মুজাহিদিন। অভিযানটি কেনিয়ার “কাউন্টার টেররিজম ফোর্স” নামে একটি বাহিনীর অবস্থান লক্ষ্য করে চালানো হয়েছিল। এতে ৪ অফিসার নিহত এবং অন্য ২ অফিসার আহত হয়। সেই সাথে অভিযানে বহু সৈন্যও হতাহত হয়।

এমনিভাবে মান্দেরা রাজ্যেও গত ৩০শে ডিসেম্বর একটি সফল অভিযান পরিচালনা করেছেন হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন। আলুঙ্গা এলাকায় অবস্থিত কেনিয়ান বাহিনীর একটি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়েছিল। শাবাবের বীরত্বপূর্ণ এই অভিযানে কেনিয়ার অসংখ্য সৈন্য হতাহত হয়। আর অভিযান শেষে মুজাহিদগণ ঘাঁটির বেশ কিছু অংশ ধ্বংস করেন এবং কিছু অংশে আগুন লাগিয়ে দেন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ৫ জানুয়ারি, ২০২৪
পরবর্তী নিবন্ধপুতুল সরকারের পশ্চাৎপদতার সময় থেকে ইসলামি ইমারত সরকারের অগ্রযাত্রার যুগ