বন্দী মুক্তি ও অপহরণকারীদের মুক্তকরণ প্রসঙ্গে জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন এর বিবৃতি:

1
1190
বন্দী মুক্তি ও অপহরণকারীদের মুক্তকরণ প্রসঙ্গে জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন এর বিবৃতি:

বন্দী মুক্তি ও অপহরণকারীদের মুক্তকরণ প্রসঙ্গে জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন এর বিবৃতি:
বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম

সকল প্রশংসা মহান আল্লাহ তায়ালার জন্য, যিনি তাঁর পবিত্র কালামে মাজীদে বলেছেন, “তোমাদের কী হলো যে, তোমরা আল্লাহর রাহে লড়াই করছো না, অসহায় সেই নর-নারী ও শিশুদের পক্ষে, যারা ফরিয়াদ করে বলছে, হে আমাদের রব! আমাদেরকে এই জনপদ থেকে নিষ্কৃতি দান করুন, যার অধিবাসীরা জালেম/অত্যাচারী! আর আপনার পক্ষ থেকে আমাদের জন্য পক্ষাবলম্বনকারী কোন বন্ধু নির্ধারণ করুন, এবং আপনার পক্ষ থেকে আমাদের জন্য সাহায্যকারী নির্ধারণ করে দিন”- (আন নিসা: ৭৫)

দুরুদ ও সালাম বর্ষিত হোক সায়্যিদুল আম্বিয়া, খাতামুন নাব্যিয়ীন, হুযূরে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া’সাল্লামের প্রতি, যিনি বলেছেন,” তোমরা বন্দীদের মুক্ত করো।”

অতঃপর, সমস্ত মুসলিম উম্মাহ, বিশেষত আমাদের মালির ভাইদের প্রতি: আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহী ওবারাকাতুহ্

আমরা আনন্দের সঙ্গে আপনাদের জানাচ্ছি যে, মহান আল্লাহ তায়ালা তাঁর কিছু নগন্য বান্দাদের দ্বারা দুইজন শত্রুর বন্দীর বিনিময়ে দুইশোরও বেশি মালির মুসলিম ভাইদের মুক্ত করার সুযোগ করে দিয়েছেন, যারা অন্যায় ও বিচারহীনভাবে দখলদার ক্রুসেডারদের নিকট বন্দী ছিলেন। আনন্দঘন এই মুহূর্তে, আমরা আপনাদের নিম্নোক্ত বার্তাটি দিচ্ছি।

১. মালির নতুন সরকারের প্রতি আমাদের বার্তা:

তোমরা ফিরে এসো, তোমাদের প্রতিপালকের দ্বীন ইসলামের দিকে, যাতে করে তোমরা দুনিয়া ও আখেরাতে সৌভাগ্যবান এবং সফলকাম হতে পার। আর মালির মুসলিমদের পূর্বের ন্যায় মুসলিম উম্মাহর অংশ হওয়ার সুযোগ দাও। ইসলামের শত্রু আগ্রাসী ফরাসী ক্রুসেডারদের সঙ্গ ত্যাগ করো, যারা গত শতকে অন্যায়ভাবে তোমাদের ধর্ম আর গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের বদ্ধমূলে আঘাত করেছে, ইসলামী রীতিনীতি মুছে দিয়েছে, খৃষ্ট ধর্মে ধর্মান্তরিত করেছে, যাতে ইসলামের নাম নিশানা দেশ থেকে মুছে ফেলা যায়। যারা দস্যুপনা করে দেশের ধন-সম্পদ লুন্ঠন করেছে যাতে মালির প্রাচুর্যতা হারিয়ে যায়। আর যার সৈন্যরা আজ অবধি নৃশংস অপরাধ করেই চলেছে, দূর্ণীতির বীজ বপন করছে মালির ভূমিতে, আর আগ্রাসন বান্ধব আইন তৈরি করছে যাতে মালি দৃঢ়তা না পায়, উন্নতি না করতে পারে, ইসলামের বিশুদ্ধ শরিয়াহ্ ভিত্তিক আইন অনুযায়ী মর্যাদার জীবন লাভ করতে না পারে।

আল্লাহ তা’আলা বলেন,”আর ইহুদী ও নাসারারা কখনোই আপনার প্রতি সন্তুষ্ট হবে না, যতক্ষণ না আপনি তাদের মিল্লাতের অনুসরণ করেন। আপনি বলে দিন,’নিশ্চয় আল্লাহ যেই পথ প্রদর্শন করেন, তাই সরল/ হিদায়াতের পথ। আর যদি আপনি তাদের প্রবৃত্তির অনুসরণ করেন, ঐ জ্ঞান লাভের পর, যা আপনার কাছে পৌঁছেছে, তাহলে আল্লাহর বিপরীতে আপনার কোন অভিভাবক ও সাহায্যকারী থাকবে না।”- (আল বাকারা: ১২০)

২. মালির ভাইদের প্রতি আমাদের বার্তা:

আপনারা জানেন, ফরাসি ক্রুসেডার দ্বারা এই আবাসভূমি আক্রান্ত, যাদের মন ইসলাম ও মুসলিমদের প্রতি ঘৃণা আর বিদ্ধেষে পরিপূর্ণ যা দিবালোকের মতো স্পষ্ট। আপনারা এই দখলদারদের অধীনে বসবাসের জন্য বরাদ্দ নন। তাই প্রতিটি সামর্থবান লোকের দায়িত্ব ফরাসি দখলদারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা, যতদিননা দখলদাররা পরিপূর্ণভাবে আমাদের ভূমি ত্যাগ করছে।
জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিনের মুজাহিদ ভাইয়েরা আপনাদের রক্ষার জন্য বছরের পর বছর ধরে কুরবানি দিয়ে যাচ্ছেন। তাই আপনারা ভাইদের সমর্থক আর সাহায্যকারী হয়ে যান।

আল্লাহ তা’আলা বলেন,” হে ঈমানদারগণ! কাফেরদের মধ্যে যারা তোমাদের নিকটবর্তী তাদের সাথে যুদ্ধ কর এবং যাতে করে তারা তোমাদের মধ্যে কঠোরতা অনুভব করতে পারে। আর জেনে রেখো, নিশ্চই আল্লাহ্ তা’আলা মুত্তাকিদের সাথে রয়েছেন।”- (সূরা আত তাওবা: ১২৩)

৩. আগ্রাসী ক্রুসেডার ফরাসী দখলদারদের প্রতি আমাদের বার্তা:

তোমরা জেনে রাখো! নিশ্চয়ই তোমাদের আর আমাদের মধ্যকার এই লড়াই চিরন্তন, নিশ্চয়ই তা কিয়ামত অবধি চলমান থাকবে, যা আমাদের জন্য সাফল্য বয়ে নিয়ে আসবে, যার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মহান আল্লাহ। সুতরাং তোমাদের জন্য উত্তম তো এটাই যে, এখনই তোমরা আমাদের ভূমি ত্যাগ করো, যেভাবে আমেরিকা আফগানিস্তান ত্যাগ করছে। আমাদেরকে আমাদের অবস্থার উপর ছেড়ে দাও, যাতে করে আমরা নিজেদের আবাসভূমিতে স্বাধীনভাবে বসবাস করতে পারি, যেমনিভাবে তোমরা তোমাদের আবাসভূমিতে স্বাধীনভাবে বসবাস করছো। আর এটা আমাদের হাতে তোমদের মৃত্যু, বন্দী আর ক্ষতিসাধন বহুগুণে বৃদ্ধি পাওয়ার আগেই করো। নিশ্চয়ই আমরা ক্ষান্ত হবো না তোমরা আমাদের ভূমি ত্যাগ করার আগ পর্যন্ত। আর নিশ্চয়ই যুদ্ধে আমরা ধৈয্যশীল এবং আলোচনায় আমরা সত্যবাদী। কল্যাণ তাদেরই জন্যই যারা সঠিক পথে থাকে।

৪. আমাদের শেষ বার্তা:

এই বার্তাটি সেই সব আরব ও অনারবের বন্দী ধর্মীয় আলেম, শিক্ষক, মুজাহিদীন, ভক্ত ও অন্যান্যদের প্রতি, যারা জুলুম ও নির্যাতনের শিকার; যদি আপনারা ধৈর্য্য ধারণ করেন ও সংযমী হন, আল্লাহর প্রতি বিশ্বাসী হন ও ভালো কিছুর আশা করেন তাহলে জেনে রাখুন, আল্লাহই শ্রেষ্ঠ সাহায্যকারী ও বিজয়ের প্রতিশ্রুতিদাতা। তিনি আপনাকে ভুলে যাননি। তিনি আপনাকে হতাশ করবেন না। আমাদের তরবারি কোষবদ্ধ হবেনা যতক্ষণ আমরা আপনাদের সকলকে বন্দীদশা থেকে মুক্ত করছি। আমরা যা বলছি আল্লাহই তার সাক্ষী।

হে আল্লাহ! আমরা তোমারই মহিমান্বিত নামে ডাকি, যেন তুমি সাড়া দাও। সকল আরব-অনারব মুসলিমদের বন্দীদশা থেকে মুক্ত করো। হে আল্লাহ, আমাদেরকে তাদের মুক্ত করতে সাহায্য করো। হে আল্লাহ, তাদের মুক্ত হওয়ার ব্যবস্থা করে দাও। আমীন।

২৬সফর ১৪৪২ হিজরী

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন