বার্ষিক রিপোর্ট || পাক-তালিবানের ২৮২টি অভিযানে ৯৭২ গাদ্দার সেনা হতাহত

আলী হাসনাত

2
1325
বার্ষিক রিপোর্ট || পাক-তালিবানের ২৮২টি অভিযানে ৯৭২ গাদ্দার সেনা হতাহত

পাকিস্তান ভিত্তিক জনপ্রিয় ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি)। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রতিরোধ বাহিনীটি পাকিস্তানে তার কার্যকারিতা বাড়িয়েছে। সম্প্রতি প্রতিরোধ বাহিনীর অফিসিয়াল মিডিয়া থেকে একটি বার্ষিক ইনফোগ্রাফি সম্প্রচার করা হয়েছে। যাতে ২০২১ সালে সারা দেশে চালানো প্রতিরোধ যোদ্ধাদের অভিযানগুলোর একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়েছে।

টিটিপির মুখপাত্র ও প্রতিরোধ বাহিনীর সাথে সংযুক্ত সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলোর মাধ্যমে প্রচারিত উক্ত ইনফোগ্রাফি অনুসারে, ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী টিটিপি’র বীর মুজাহিদগণ গত ২০২১ সালে সিন্ধু রাজ্য ছাড়া রাজধানি ইসলামাবাদসহ দেশের বাকি ১২টি রাজ্যের ১৯টি জেলায় মোট ২৮২টি অভিযান চালিয়েছেন। হামলাগুলিতে পাকিস্তান গাদ্দার সামরিক বাহিনীর ৯৭২ সদস্য নিহত ও আহত হয়েছে।

অঞ্চল হিসাবে টিটিপির বীর যোদ্ধারা সবচাইতে বেশি হামলা চালিয়েছেন উত্তর ওয়াজিরিস্তানে, ৮১টি। এরপর রয়েছে বাজোর এজেন্সিতে ৬২টি। অপরদিকে রাজ্য হিসাবে টিটিপির হামলায় সর্বোচ্চ সংখ্যাক সেনা নিহত হয়েছে বান্নুতে, যেখানে টিটিপির বীর যোদ্ধারা অভিযান চালিয়ে ১০০ সেনা ও পুলিশ সদস্যকে হত্যা করেছেন। এরপরে রয়েছে বাজোর এজেন্সি, যেখানে টিটিপির হামলায় সামরিক বাহিনীর ৬২ গাদ্দার সদস্য নিহত হয়েছে।

অপরদিকে মাস হিসাবে টিটিপির হামলার পরিসংখ্যান ছিল-
– জানুয়ারীতে: ১৭
– ফেব্রুয়ারিতে: ১৫
– মার্চে: ৩৯
– এপ্রিলে: ১৬
– মে: ২১
– জুনে: ১৬
– জুলাই: ২৬
– আগস্টে: ৩২
– সেপ্টেম্বরে: ৩৭
– অক্টোবরে: ২৪
– নভেম্বরে: ৪
– ডিসেম্বরে: ৪৫

যেহেতু ঐবছরের ৯ নভেম্বর থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ইসলামাবাদ প্রশাসন এবং টিটিপির মধ্যে যুদ্ধবিরতি হয়েছিল, তাই নভেম্বর মাসে টিটিপি সবচেয়ে কম আক্রমণ করেছিল। অপরদিকে পাকিস্তান প্রশাসন যুদ্ধবিরতি ও চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করায় ডিসেম্বরে লক্ষণীয় হারে টিটিপির হামলা বেড়ে যায়।

উক্ত ইনফোগ্রাফিতে দেখানো হয়েছে যে, ঐ বছর টিটিপি যোদ্ধারা সফল অভিযান চালিয়ে পাকিস্তানের গাদ্দার প্রশাসনের ৬৮৮ সেনা, ১৪২ এফসি, ১২০ পুলিশ, ১৭ গোয়েন্দা এবং লেভিস ফোর্সের ৫ সদস্যকে হত্যা বা আহত করেছেন।

টিটিপি জানিয়েছে যে বিভিন্ন ধরনের এসব হামলার মধ্যে তিনটি শহিদী বোমা হামলাও রয়েছে। সব মিলিয়ে টিটিপি কর্তৃক পরিচালিত ২৮২টি হামলায় গাদ্দার প্রশাসনের মোট ৫০৯ নিহত এবং ৪৬৪ সদস্য আহত হয়েছে।

সেইসাথে মুজাহিদদের হামলায় ২৫টি সামরিক যান, ২৪টি গাড়ি এবং ১২ এরও বেশি সামরিক কাঠামো এবং অন্যান্য সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস হয়েছে।

উল্লেখ্য এই গাদ্দার পাকিস্তানী সেনাবাহিনী যুগ যুগ ধরে ইসলাম ও মুসলিমদের সাথে প্রতারণা ও তাদের সরাসরি ক্ষতি করে আসছে। তাদের ধোঁকা ও প্রতারণার ফিরিস্তি এতই দীর্ঘ যে, সেটা কখনো কখনো হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় বর্বর বাহিনীকেও হার মানায়।

টিটিপি মুজাহিদগণ তাই ঐ গাদ্দার বাহিনীর উপর হামলা ও নির্মূল অভিযান চালিয়ে এই উপমহাদেশের আম মুসলিম জনতা ও বিশ্ব মুসলিমের এক বিরাট খেদমত আঞ্জাম দিয়ে যাচ্ছেন বলে মনে করেন হকপন্থী উলামাগণ।

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন