দেশে দেশে মুসলিম বিদ্বেষ: ‘ফ্রান্সে শুধু ইউক্রেনীয়দের আশ্রয় দেওয়া উচিত, মুসলিমদের নয়’

0
1016
দেশে দেশে মুসলিম বিদ্বেষ: ‘ফ্রান্সে শুধু ইউক্রেনীয়দের আশ্রয় দেওয়া উচিত, মুসলিমদের নয়’

রাশিয়ার হামলায় ইউক্রেন ছেড়ে পালাচ্ছে লাখ লাখ মানুষ। আশে পাশের বিভিন্ন দেশে নিরাপদে আশ্রয়ের জন্য পালাচ্ছে তারা। বেশিরভাগ মানুষ পোল্যান্ডে যাচ্ছে। ইউক্রেন ছাড়া অন্যান্য মুসলিম দেশগুলোতে পশ্চিমা সন্ত্রাসীরা দীর্ঘদিন ধরেই হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু মানবতার বুলি আওড়ানো কোন দেশ মুসলিমদের আশ্রয় দিতে রাজি নয়।
এরই মধ্যে ফ্রান্সের এক মুসলিম বিদ্বেষী নেতা পালিয়ে যাওয়া এইসব মানুষদের মধ্যে মুসলিমদের প্রতি ভিন্ন আচরণ করার কথা বলেছে।
সে বলেছে ইউক্রেন থেকে পালিয়ে আসা শরণার্থীদের ফ্রান্সে আশ্রয় দেয়া উচিত। তবে অন্য সংঘাত থেকে পালিয়ে আসা মুসলিমদের আশ্রয় দেয়া ঠিক হবে না। তার নাম জেমুর। সে ফ্রান্সের ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ।

গত মঙ্গলবার (৮ মার্চ) মুসলিম বিদ্বেষী এমন মন্তব্য করে জেমুর।। শরণার্থীদের আশ্রয় দেয়ার ব্যাপারে সে যুক্তরাজ্যের নীতি ফ্রান্সকেও অনুসরণের পরামর্শ দেয়।
বক্তব্যে জেমুর আরো বলেছে, যদি তাদের ফ্রান্সের সাথে সম্পর্ক থাকে, ফ্রান্সে তাদের পরিবার থাকে, তাহলে তাদের ভিসা দিন। কিছু মানুষ আছে যারা আমাদের মতো(অমুসলিমরা) এবং আর কিছু মানুষ আছে যারা আমাদের মতো নয়(মুসলিমরা)।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে।
এযুদ্ধের মাধ্যমে পশ্চিমাদের আসল ভন্ডামি প্রকাশ পেয়ে গেছে। তারা মুখে যতই মানবতার কথা বলুক মুসলিমদের বেলায় তারা চরম বিদ্বেষী।
আরো লক্ষ্যণীয় বিষয় হচ্ছে ইউক্রেন ও রাশিয়ার যুদ্ধে হলুদ মিডিয়ার কারসাজি ও সরব ভূমিকা। তারা মুসলিমদের উপর হামলার সময় চুপ থাকে। দেখেও না দেখার ভান করে। উল্টো মুসলিমদের সন্ত্রাসী রুপে তুলে ধরে। কিন্তু এবার কাকে সন্ত্রাসী বা জঙ্গী বলবে এ নিয়ে বিপাকে পড়েছে মিথ্যাবাদী মিডিয়াপাড়া।
তথ্যসূত্র:
—–
১।‘শুধু ইউক্রেনীয়দের ফ্রান্সে আশ্রয় দিন, মুসলিমদের নয়’
https://tinyurl.com/2dscrdd9

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন