পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১২ দিনের ‘যুদ্ধবিরতি’ ঘোষণা পাক-তালিবানের

ত্বহা আলী আদনান

3
2575
পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১২ দিনের ‘যুদ্ধবিরতি’ ঘোষণা পাক-তালিবানের

পাকিস্তান ভিত্তিক জনপ্রিয় ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি) সম্প্রতি নতুন একটি বিবৃতি জারি করেছে। যেখানে তাঁরা পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিরোধ বাহিনীটির মুখপাত্র মুহাম্মদ খোরাসানির দেওয়া বিবৃতি অনুসারে, টিটিপির আমীর মুফতি নূর ওয়ালী মেহসুদ (হা.) দেশবাসী ও সামরিক বাহিনীকে উদ্দেশ্য করে একটি বিবৃতি জারি করেছেন।

বিবৃতিতে সমস্ত পাকিস্তানি মুসলমানদের, বিশেষ করে পশতুন অঞ্চল এবং বেলুচিস্তানে বসবাসকারী জনগণকে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

“আমরা যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করছি”

এরপর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমরা ২৯শে রমজান (১মে) থেকে ১০ই শাওয়াল (১২ মে) পর্যন্ত যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করছি।

টিটিপির আমীর উল্লেখ করেছেন যে, আমরা এই সময়ের মধ্যে আক্রমণ চালাবো না। তবে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী যদি আক্রমণ শুরু করে তবে তা কঠোর হস্তে পতিহত করা হবে।

মুফতি সাহেব বিবৃতিতে জোর দিয়ে আরও বলেন, এই যুদ্ধবিরতি প্রক্রিয়া যুদ্ধ শেষ হওয়ার ইঙ্গিত নয়, বরং আমরা “আমাদের লক্ষ্য অর্জন হওয়ার আগ পর্যন্ত পবিত্র এই যুদ্ধ চালিয়ে যাবো”।

“আমাদের যুদ্ধ চলবে”

মুফতি নূর ওয়ালী মেহসুদ হাফিজাহুল্লাহ্ বলেন, পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার কারণ ছিল ইসলাম ধর্ম, কিন্তু আজ পাকিস্তান সেই মহান উদ্দেশ্য থেকে বিচ্যুত হয়েছে। তাই মুফতি মেহসুদ পাকিস্তানি বাহিনীকে তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বন্ধ করে মুজাহিদদের হাতে আত্মসমর্পণ ও অস্ত্র তুলে দেওয়ার আহ্বান জানান।

এরপর মুফতি সাহেব পাকিস্তান রাষ্ট্রকে “মুসলিম জনগণ, বিশেষ করে পশতুন উপজাতি এবং বেলুচিস্তানের জনগণের উপর নিপীড়ন বন্ধ করার” আহ্বান জানিয়েছেন। এসময় তিনি বলেছেন যে, পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীকে এই অঞ্চলগুলি থেকে প্রত্যাহার করা উচিত।  পাকিস্তানকে সত্যিকার অর্থে ইসলাম অনুশীলন করার আহ্বান জানিয়ে নূর ওয়ালী বলেছেন যে, এটি না হওয়া পর্যন্ত আমরা যুদ্ধ চালিয়ে যাবো।

বার্তার শেষে, মুফতি নূর ওয়ালী মেহসুদ হাফিজাহুল্লাহ্ বিজয় আফগান মুসলিমদেরকে “ইসলামি শাসনের অধীনে তাদের প্রথম ঈদ উদযাপনের অভিনন্দন জানান। তিনি আরও ব্যক্ত করেন যে, আমরা নিজেরাও একই রকম পরিস্থিতি অনুভব করতে চাই।

এদিকে টিটিপি তাদের অন্য এক বিবৃতিতে, ইমারাতে ইসলামিয়া আফগানিস্তানের চাঁদ দেখা কমিটির ঘোষণা অনুযায়ী, আজ রবিবার পাকিস্তানি মুসলিমদেরকে ঈদ উদযাপনের নির্দেশ দিয়ে ইসলামি খিলাফতের চিত্র তুলে ধরেছে।

3 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন