কেবল পাকতিয়া প্রদেশেই ৫ মাসে ৮৭ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা বিতরণ তালিবান প্রশাসনের

নজরুল করিম

0
996
কেবল পাকতিয়া প্রদেশেই ৫ মাসে ৮৭ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা বিতরণ তালিবান প্রশাসনের

আফগানিস্তানের গত ৬ মে ইসলামি ইমারতের কৃষি, সেচ ও গবাদি পশু বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, ২০২১-২২ সাল জুড়ে গত ৫ মাসে পাকতিয়া প্রদেশের ৮৭ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন তাঁরা। অভাবি, দরিদ্র ও শহীদ পরিবারসমূহের মাঝে এই খাদ্যসামগ্রি বিতরণ করা হয় বলে জানানো হয়।

ওআরডি এর সহায়তায় পাকতিয়া প্রদেশজুড়ে এই সহায়তা প্রদান করে কৃষি, সেচ ও গবাদি পশু বিভাগ।

অ্যামেরিকা ও পশ্চিমা বিশ্বের টানা ২০ বছরের অন্যায় যুদ্ধ, অবরোধ এবং আফগান রিজার্ভ আটকের ফলে আফগানিস্তানের জনগণ আর্থিক বিপর্যয়ে পরে যায়। এই বিপর্যয় থেকে উত্তরণকল্পে নানান পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি অতি সমস্যাকবলিত এলাকায় সমানতালে ত্রান কার্যক্রমও পরিচালনা করে যাচ্ছেন তালিবান সরকার।

ধারাবাহিক খাদ্য ও ত্রান সহায়তা বিতরনের অংশ হিসেবে, পাঞ্জশিরের রাজধানী বাযারাকেও গত ৮ মে পাঞ্জশির প্রদেশের রাজধানী বাযারাখে প্রায় ৩০০ অভাবগ্রস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন ইসলামি ইমারত আফগানিস্তানের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। ত্রাণের মূল সরবরাহকারি তুর্কি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। এআরসিএস ও টিআরসিএস- এর যৌথ উদ্যোগে ৩০০ পরিবারের মাঝে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত এপ্রিল মাস জুড়েও অব্যাহত ছিল ৫তালিবান কর্তৃপক্ষের ত্রান ও খাদ্য সহায়তা বিতরণ কর্মসূচী।

১ এপ্রিল কুন্দুজ প্রদেশে ১২৩০ পরিবারকে, ২ এপ্রিল তাখার প্রদেশে ৭০০ পরিবারকে, ৪ এপ্রিল গজনি প্রদেশের জাঘরি জেলায় ৫৮০০ পরিবারকে এবং বামিয়ানের ১১৩০ বস্তুচ্চুত পরিবারকে, ৫ এপ্রিল বাঘলান প্রদেশে ১,০০০ পরিবারকে, ৬ এপ্রিল গজনী প্রদেশে ৭৩০০ পরিবারকে,  ৭ এপ্রিল নানগারহারের ১১২১ পরিবারকে, ১১ এপ্রিল খোস্ত প্রদেশের ৮০০ পরিবারকে,  ১৪ এপ্রিল পাকতিয়া প্রদেশে ৪০০০ পরিবারকে এবং কাবুলে ২০০ পরিবারকে, ১৮ এপ্রিল লাঘমান প্রদেশের ৩০০ পরিবারকে এবং লোগার প্রদেশের ১৮৫০ পরিবারকে,, ১৯ এপ্রিল কুন্দুজের ৫০০ পরিবারকে, ২০ এপ্রিল কান্দাহারের ৩৫০ পরিবারকে এবং নানগারহার প্রদেশের ২০০ পরিবারকে খাদ্য অত্রান সহায়তা বিতরণ করা হয়।

খাদ্য ও ত্রান সহায়তা কার্যক্রম মূলত দেশি-বিদেশি বিভিন্ন এনজিও ও দাতব্য সংস্থার সহায়তায় সম্পন্ন করা হয়।

এই খাদ্য ও ত্রান সহায়তা ছাড়াও এতিম ও অভাবগ্রস্থদের মাঝে নগদ অর্থ ও প্রয়োজনীয় সামগ্রি বিতরণের কার্যক্রমও ছিল চোখে পড়ার মতো। কৃষিপ্রধান অঞ্চলগুলোতে ক্রিসকদের মাঝে সার, বিজ ও কীটনাশক সহ নানান কৃষি সামগ্রিও বিতরণ করা হয়েছে।

নানগারহার সহ কয়েকটি প্রদেশে এমনকি প্রয়োজনীয় পশুখাদ্যও বিতরণ করা হয়েছে।

নীচে খাদ্য, ত্রান ও কৃষি সহায়তা বিতরণ কার্যক্রমের কিছু দৃশ্য দেখুন –


তথ্যসূত্র :
——–
1. Aid provided to 300 needy families in Panjshir
https://tinyurl.com/5dpujcyk
2. 87000 families receive assistance in Paktika
https://tinyurl.com/49mt4mvx

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন