যুদ্ধক্ষেত্রে ধরাশায়ী আমেরিকা : আশ-শাবাবের হামলায় ৬০ এরও বেশি সৈন্য নিহত

ত্বহা আলী আদনান

1
1055

সোমালিয়ায় যুদ্ধক্ষেত্রে বড়ধরণের সামরিক পরাজয় বরণ করছে ক্রুসেডার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কুফ্ফার এই দেশটি সোমালিয়ায় আশ-শাবাবের অগ্রগতি রুখতে প্রতিবছর শত শত সেনাকে হাজার হাজার ডলার খরচ করে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। কিন্তু যুদ্ধের ময়দানে তাদের এসব কিছুই ব্যর্থতায় পর্যবাসিত হচ্ছে।

গতকাল ২১ সেপ্টেম্বর বুধবারেও আশ-শাবাবের কাছে ‘গণধোলাই’ খেয়েছে মার্কিন প্রশিক্ষিত ‘দানব’ ফোর্সের সেনারা।

স্থানীয় সূত্রমতে, মার্কিন প্রশিক্ষিত সেনারা গতকাল হিরান রাজ্যে আশ-শাবাবের শরিয়াহ্ শাসিত অঞ্চলে পরপর ৫ দাফায় অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু প্রতিবারই সেনারা ব্যর্থ হয়ে ফিরে যায়। শেষবার গাদ্দার সৈন্যরা যখন রাজ্যটির বোয়াউ শহরে আগ্রাসন চালায়, তখন আশ-শাবাব যোদ্ধাদের তীব্র প্রতিরোধের মুখে পড়ে সেনারা।

এসময় মুজাহিদদের অসাধারণ যুদ্ধ কৌশলের সামনে লজ্জাজনক ভাবে পরাভূত হয় মার্কিন প্রশিক্ষিত সেনারা। যেখানে আশ-শাবাবের হামলায় উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সহ ৪০ এর বেশি সৈন্য নিহত হয়েছে। এছাড়াও তুর্কী প্রশিক্ষত গরগর ফোর্সের কমান্ডার সহ আরও ২০ এরও বেশি সৈন্য আহত হয়েছে।

তীব্র এই লড়াইয়ে আমেরিকা ও তুরস্ক তাদের ড্রোন দিয়ে গাদ্দার স্পেশাল ফোর্সকে সর্বাত্মক সহায়তা করেছে। এতো কিছুর পরেও গাদ্দার বাহিনী হারাকাতুশ শাবাব যোদ্ধাদের কাছে পরাভূত হয়েছে। আর এটি এতটাই লজ্জাজনক অধ্যায় ছিলো যে, মার্কিন প্রশিক্ষত সেনারা তাদের সঙ্গীদের মৃতদেহগুলি যুদ্ধক্ষেত্রে রেখেই পালিয়ে যায়।

উল্লেখ্য যে, এদিন হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন সোমালিয়ার জালাজদুদ, শাবেলি সুফলা এবং হিরান রাজ্যে আরও ১৬টি সফল হামলার নেতৃত্ব দিয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে, মুজাহিদদের এসব বীরত্বপূর্ণ অপারেশনেও আরও কয়েক ডজন কুফ্ফার ও গাদ্দার সৈন্য হতাহত হয়েছে।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন