১২০০ টিরও অধিক মাদক উৎপাদন কারখানা নির্মূল করেছে ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তান

0
146

বিগত পুতুল সরকারের আমলে মাদক উৎপাদনে বিশ্বে শীর্ষ স্থানে ছিল আফগানিস্তান। ইমারতে ইসলামিয়া সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর দেশকে মাদক মুক্ত করতে প্রতিশ্রুতি গ্রহণ করেছে। ইতোমধ্যে অসংখ্য মাদক উৎপাদন কারখানা ধ্বংস করেছেন তারা। হাজার হাজার হেক্টর জমি থেকে অবৈধ মাদক চাষ (পপি গাছ) নির্মূল করেছে বর্তমান প্রশাসন।

মাদকের বিরুদ্ধে সক্রিয়ভাবে লড়াই করে যাচ্ছে ইমারতে ইসলামিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন মাদক নির্মূল পরিচালনা দপ্তর। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রধান হাসিবুল্লাহ আহমাদি হাফিজাহুল্লাহ’র দেয়া সাম্প্রতিক তথ্যানুযায়ী, দেশের বিভিন্ন প্রদেশে এখন পর্যন্ত প্রায় ১২৫০ টি এলকোহল ও মাদক প্রক্রিয়াজাত করণ কারখানা ধ্বংস করেছে সরকার। এছাড়া একাধিক প্রদেশের প্রায় ১৫,৫০০ হেক্টর কৃষি জমি থেকে মাদক চাষ (পপি গাছ) অপসারণ করা হয়েছে।

সামগ্রিক প্রচেষ্টার বদৌলতে দেশে মাদকদ্রব্য উৎপাদন ও পাচার শূন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। মাদক সংশ্লিষ্ট ব্যবসাও প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। তবে মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের আন্তরিক সংগ্রাম এখনও চলমান রয়েছে বলে জানান জনাব হাসিবুল্লাহ হাফিজাহুল্লাহ।

এখনও অনেকে এই অবৈধ দ্রব্যের উৎপাদন, পাচার ও ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে। এই সকল অপরাধীকে বিচার ও আইনের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও জাতীয় জীবনে মাদক সর্বাবস্থায় অভিশাপ স্বরূপ। ইসলামী সংবিধানেও মাদকের বিরুদ্ধে রয়েছে কঠোর নিষেধাজ্ঞা। তাই আইন প্রয়োগের পাশাপাশি জনগণকে মাদকের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে সচেতন করে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। একই সাথে মাদকাসক্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে আন্তরিক চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে ইমারতে ইসলামিয়া প্রশাসন।


তথ্যসূত্র:
1) Officials: Over 1,200 Drug Factories Destroyed Since Islamic Emirate Return
https://tinyurl.com/54r9653m

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধদারসে রমাদান।। দারস-১৩।। আমলের ফজীলত অর্জনে সচেষ্ট হওয়া।।
পরবর্তী নিবন্ধআরও ১০০টি সামরিক যান মেরামত করেছে ইমারতে ইসলামিয়া প্রশাসন