পাকিস্তানিদের নতুন পেরেশানি, বাড়ছে গ্যাসের দাম

0
311

পাকিস্তানের বর্তমান সরকারের পক্ষ থেকে গ্যাসের দাম পাঁচ থেকে ১৫ শতাংশ বাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

দৈনিক পাকিস্তান এক্সপ্রেস নিউজ সূত্রে জানিয়েছে, সরকার আইএমএফের শর্ত পূরণ করতে রাজি হয়েছে। যার ফলে গ্যাসের দাম 5% থেকে 15% পর্যন্ত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উপদেষ্টা কোষাধ্যক্ষ আবদুল হাফিজ শায়খের সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভা অর্থনৈতিক সমন্বয় কমিটি (ইসিসি) আগামী মঙ্গলবার ব্যাপারে বৈঠক করবে।

সূত্রমতে, পেট্রোলিয়াম বিভাগের ১৫ শতাংশ বৃদ্ধির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে ওগরা গ্যাসের দাম ২৪৫% বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছিল, এখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ইসিসিই করবে, তারপরে ইসির সিদ্ধান্ত  ফেডারেল মন্ত্রিসভা দ্বারা অনুমোদন করা হবে।

সূত্রমতে, সরকার আইএমএফের সাথে গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিষয়ে একমত হয়েছে এবং এই বৃদ্ধি ১ জানুয়ারি থেকে হওয়ার কথা থাকলেও রাজনৈতিক ও জনগণের প্রতিক্রিয়া সত্ত্বেও দু’বার ইসির বৈঠকে এই শীর্ষ সম্মেলনে উপস্থাপন করা হয়। তবে এখনো কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি, এখন আইএমএফের পর্যালোচনা মিশন পাকিস্তানে এসে পৌঁছেছে এবং আলোচনাও চলছে বলে আশা করা হচ্ছে,  ইসির আগামী বৈঠকে মূল্য নির্ধারিত হবে।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পেট্রোলিয়াম মন্ত্রককে গ্যাসের দাম বাড়ানোর জন্য  নির্দেশনা দিয়েছেন। এক্ষেত্রে গার্হস্থ্য গ্রাহকদের জন্য প্রতি মাসে ২০ রুপি থেকে ৮০ রুপি বাড়ানো হবে, গার্হস্থ্য গ্রাহকরা প্রতি মাসে ৪০ থেকে ৫০ ইউনিট পর্যন্ত গ্যাস ব্যবহারের জন্য ওভেন সেক্টরের ন্যূনতম মাসিক বিল 220 রুপি হবে।

সূত্র বলছে বিদ্যুৎ খাতের জন্য গ্যাসের দামগুলি 12% এবং শিল্প বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং সিএনজি স্টেশনগুলির জন্য গ্যাসের দাম 15% প্রস্তাব করা হয়েছে। 2020 ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রস্তাবিত গ্যাসের দাম বাস্তবায়নের আদেশ দিয়েছে।

সূত্র: দৈনিক পাকিস্তান

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন