কুখ্যাত শাতেমে রাসূল (ﷺ) নূপুর শর্মার সমর্থনে হিন্দুত্ববাদীদের মিছিল

উসামা মাহমুদ

0
357

উগ্র হিন্দুত্ববাদী ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি কর্তৃক মহানবী হজরত মুহাম্মদ (ﷺ) কে নিয়ে অশালীন মন্তব্যের পর বিক্ষোভে উত্তাল দেশটির বিভিন্ন রাজ্য। আর নবী প্রেমী এসব বিক্ষোভকারীদের দমন করতে মাঠে নেমেছে দেশটির সরকারি গুণ্ডা বাহিনী এবং হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা। শুধু ঝাড়খণ্ডেই প্রতিবাদী দুই মুসলিম যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে। আহত হয়েছেন অনেকে। অগণিত মুসলিমকে আটক করেছে হিন্দুত্ববাদী প্রশাসন।

কটুক্তির পর থেকেই হিন্দুত্ববাদীরা তাকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। তাকে শাস্তি দেওয়া পরিবর্তে মুসলিমদেরকেই দোষী বানাচ্ছে।
আর সেই কুখ্যাত শাতেমে রাসূল নুপুর শর্মার সমর্থনে সমাবেশও করছে হিন্দুত্ববাদীরা।

ভারতের পাশের রাষ্ট্র নেপালেও প্রাক্তন বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মার সমর্থনে বিশাল মিছিল বের করেছে সেই দেশের হিন্দুরা। সেই ভিডিও ক্লিপগুলো ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

“আমরা নূপুর শর্মাকে পূর্ণ সমর্থন করি” এমন লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে ‘জয় শ্রী রাম’  স্লোগান তুলে এদিন মিছিল বের করে নেপালের হিন্দুরা। টুইটার এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে বেশ কিছু ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে, যাতে দেখা যাচ্ছে নেপালি পতাকা হাতে নূপুর শর্মার সমর্থনে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বেরিয়েছে একদল মানুষ। ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবেও আরেকটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে, যাতে নূপুর শর্মা এবং নেপালি পুলিশের আধিকারিকদের সমর্থনে বিপুল সংখ্যক লোককে সমাবেশ করতে দেখা যায়।

এই বিতর্কে নূপুর শর্মাকে প্রকাশ্যে সমর্থন করেছে বেশ কয়েকজন হিন্দু ধর্মগুরুও। কাশীর ধর্ম পরিষদে হিন্দু সাধুরা স্পষ্টভাবে বলেছে যে, যারা নূপুর শর্মাকে হুমকি দিচ্ছে তাদের ধরা উচিত এবং শাস্তি দেওয়া উচিত।

এছাড়াও সম্প্রতি পাতালপুরী মঠের প্রধান মহন্ত বালক দাসের একটি ভিডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। যেখানে তাঁকে বলতে শোনা যাচ্ছে- ইসলামপন্থীরা যদি নূপুর শর্মার কোনো রকম ক্ষতি করার চেষ্টা করে, তাহলে তাঁকে রক্ষা করতে ১৮ লক্ষ নাগা সাধু রাস্তায় নামবে।

ভিডিওটি গত ১১ জুন কাশীর ধর্ম পরিষদের একটি সমাবেশের। জানা গিয়েছে যে হরতীর্থের বারাণসীর সুদাম কুটিতে ধর্ম পরিষদের একটি সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল। আর সেই সমাবেশেই সভাপতিত্ব করেছিল পাতালপুরী মঠের প্রধান মহন্ত বালক দাস। সেখান থেকেই সে এইরূপ মন্তব্য করে।

আসলে হিন্দুত্ববাদীদের ভিতরে ইসলাম বিদ্বেষ সব সময়ই ছিল। ফলে একজন প্রকাশ করলে বাকীরা তাকে সমর্থন করতে থাকে। তাকে রক্ষা করতে রাস্তায় নেমে আসে। বিপরীতে মুসলিমদের এক অংশ হিন্দুত্ববাদীদের নির্যাতনের শিকার হলেও অন্যান্য মুসলিমরা নীরব থাকে। নিজেদের মাঝে ছোটখাটো বিষয় নিয়ে ঝগড়া করে। যার ফলে হিন্দুত্ববাদীদের দৌরাত্ম দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।


তথ্যসূত্র:
——–
1. Hindu supremacists come out in support of the BJP spokesperson who made derogatory remarks against the Prophet Muhammad.
https://twitter.com/i/status/1537199940396789760
https://tinyurl.com/mufm62cy
2. Prophet Row: নূপুর শর্মার সমর্থনে পথে নামবেন ১৮ লক্ষ সাধু
https://tinyurl.com/5ypa3pna

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন