কেনিয়া | আশ-শাবাবের পৃথক অভিযানে গোয়েন্দা সহ ১৮ ক্রুসেডার নিহত

ত্বহা আলী আদনান

0
609

পূর্ব আফ্রিকার দেশ কেনিয়ায় দেশটির ক্রুসেডার বাহিনীর বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান পরিচালনা করছেন সশস্ত্র ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। যাতে দেশটির অসংখ্য ক্রুসেডার সৈন্য নিহত এবং আহত হচ্ছে।

সেই ধারাবাহিকতায় গত ৭দিনে দেশটিতে ১৭টি পৃথক অপারেশন পরিচালনা করছেন ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী আল-কায়েদার পূর্ব আফ্রিকান শাখা হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন।

সর্বশেষ গতকাল ৮ আগষ্ট দুপুরে দলটির প্রতিরোধ যোদ্ধারা কেনিয়ার মান্দিরা অঞ্চলে সফল অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানটি রাজ্যটির ইলি জেলায় কেনিয়ার বাহিনীর একটি ঘাঁটি লক্ষ্য করে চালানো হয়েছিল। সরকারি সূত্র মতে, আশ-শাবাবের উক্ত হামলায় ক্রুসেডার বাহিনীর ৬ সৈন্য হতাহত হয়েছে।

এই অভিযানের একদিন আগে কালবায়ু শহরে কেনিয়ান সেনাদের অন্য একটি ঘাঁটিতে হামলা চালান মুজাহিদগণ। যাতে অন্তত ৮ ক্রুসেডার সেনা হতাহত হয়।

এর আগে গত ২ আগষ্ট কেনিয়ান বাহিনীর বিরুদ্ধে ২টি সফল অভিযান পরিচালনা করেন মুজাহিদগণ। যার প্রথমটি চালানো হয় মান্দিরা রাজ্যের আইল-রামু এলাকায়। যেখানে ক্রুসেডার বাহিনীর একটি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালান হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন। এতে ৫ সেনা নিহত এবং আরও ৩ সেনা গুরুতর আহত হয়।

একই তারিখে ‘ইলওয়াক’ শহরের উপকণ্ঠে আরও একটি বীরত্বপূর্ণ অপারেশন পরিচালনা করেন মুজাহিদগণ। যেখানে আশ-শাবাব যোদ্ধারা কেনিয়ান গোয়েন্দা সংস্থার বেশ কিছু সদস্যের উপস্থিতির তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালান। ফলে উক্ত অভিযানে কেনিয়ান দুই গোয়েন্দা সদস্য মুজাহিদদের হাতে নিহত হয় এবং বাকিরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

সোমালিয়ার পর ইথিওপিয়া ও কেনিয়ায় বিস্তীর্ণ অঞ্চলে নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি ও অভিযান পরিচালনা পূর্ব আফ্রিকা অঞ্চলে আশ-শাবাবের শক্তিমত্তার জানান দিচ্ছে। পাশাপাশি এই অঞ্চলের মুসলিমরা যে পশ্চিমা-জোট ও তাদের ব্যর্থ গনতন্ত্রকে প্রত্যাখ্যান করে ইসলামের ছায়াতলে নিরাপত্তাবোধ করছে, সেটাও এখন প্রমাণিত সত্য বলে মনে করেন বিশ্লেষকগণ।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন