শুধু সন্দেহের বশে বাচ্চাসহ মুসলিম মহিলাকে ১৬ মাসের জেল

মাহমুদ উল্লাহ্‌

1
432

ভারতের ভাটকলের বাসিন্দা ৩৩ বছর বয়সী সম্মানিতা মুসলিম নারী খাদিজা মেহরিন। হিন্দুত্ববাদী পুলিশ কোন ধরণের যাচাই বাচাই না করেই পাকিস্তানি সন্দেহে তার আড়াই বছরের বাচ্চাসহ ১৬ মাস জেলে আটকে রাখে। গত ১১ নভেম্বর কর্ণাটক হাইকোর্টে এটা প্রমাণিত যে, তিনি কোন অপরাধ না করেও শুধু সন্দেহের কারণে  হয়েছেন।

তাকে ১৬ মাসের জন্য বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখে। সাথে তার আড়াই বছরের বাচ্চাকেও কারাগারে রাখা হয়।

আবেদনে খাতিজা মেহরিন জানান, তিনি ভাটকলে জন্মগ্রহণ করেছেন। এবং নৌনিহাল সেন্ট্রাল স্কুলে পড়াশোনা করেছেন। তার কারাবাসের সময়, ভাটকলে তার স্বামী মহিউদ্দিন রুকুদ্দিন ২২ এপ্রিল, ২০২২-এ মারা যান।

খাতিজা মেহরিন আরও জানিয়েছেন যে, তার সাত বছর, পাঁচ বছরের তিনটি বাচ্চা রয়েছে এবং সবচেয়ে ছোট বাচ্চাটি তার সাথে কারাগারে ছিল। বাচ্চারা তাদের মাকে ছাড়া এবং বাবার মৃত্যুর পর কতটুকু অসহায় অবস্থায় দিনাতিপাত করেছে, তার কোন তোয়াক্কা হিন্দুত্ববাদী ভারতের পুলিশ-প্রসাশন করেনি।

উত্তর কন্নড় জেলার ভাটকল শহরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে খাদিজা মেহরিনকে আটক করেছিল। পুলিশ তাকে পাকিস্তানের নাগরিক সন্দেহে গ্রেপ্তার করে। অথচ তাঁর কাছ থেকে কোন প্রমাণাদি গ্রহণ করেনি হিন্দুত্ববাদী পুলিশ, না তাঁর কোন কথা শুনেছে ইসলামবিদ্বেষে অন্ধ হয়ে যাওয়া এই হিন্দুত্ববাদী বাহিনী।

কতটা ইসলামবিদ্বেষী হলে এভাবে বাচ্চাসহ একজন নারীকে শুধুমাত্র সন্দেহের বশে এমন অমানবিক পরিস্থিতির মাঝে জেলে আটকে রাখা যায়! হিন্দুত্ববাদী ভারতের পরিস্থিতি এখন মুসলিমদের জন্য এমনই দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।



তথ্যসূত্র:
——-
1. ‘Scapegoat’: Karnataka HC Grants Bail to Muslim Woman Accused of being Pakistani
https://tinyurl.com/bdhk78tj

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন