কাতার বিশ্বকাপে জাকির নায়েকের উপস্থিতি নিয়ে হিন্দুত্ববাদী ভারতের ইসলাম বিদ্বেষ

মুহাম্মাদ ইব্রাহীম

2
1267

হিন্দুত্ববাদীদের ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষ শুধু ভারতেই সীমাবদ্ধ নয়। মুসলিমদের জন্য হিন্দুত্ববাদ এখন বৈশ্বিক সমস্যায় পরিণত হয়েছে। অতি সাম্প্রতিক ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাজ্যের লেস্টারে মুসলিমদের বিরুদ্ধে হিন্দুত্ববাদীদের সহিংসতা প্রত্যক্ষ করেছে বিশ্ববাসী।

এবার ভারতীয় দাঈ জাকির নায়েককে আমন্ত্রণ জানানোয় কাতারে বিশ্বকাপ ফুটবল বয়কট করার জন্য সরকারকে অনুরোধ করেছে বিজেপি নেতা ও মুখপাত্র স্যাভিও রডরিগেস। ২২ নভেম্বর মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় সরকার, ইন্ডিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ও সাধারণ ফুটবলপ্রিয় মানুষকে সে অনুরোধ করেছেন, তারা যেন কাতারে বিশ্বকাপের অনুষ্ঠান বয়কট করে।

বিশ্বকাপ ফুটবল চলাকালে জাকির নায়েক ওই দেশে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ইসলাম ধর্ম প্রচার করবেন বলে কাতারের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত স্পোর্টস চ্যানেল ‘আলকাস’ জানিয়েছে। আলকাসের ওই সিদ্ধান্তের কথা প্রচার করেছে সে দেশের সংবাদমাধ্যম ‘আল আরবিয়া নিউজ’। এই খবর সম্প্রচারিত হওয়ার পরেই গোয়া রাজ্যের বিজেপি নেতা ও মুখপাত্র স্যাভিও রডরিগেস মঙ্গলবার ভারত সরকারকে ওই অনুরোধ করে।

স্যাভিওর ভাষ্য, ‘গোটা পৃথিবী যখন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, জাকির নায়েক তখন ঘৃণা ছড়াতে ব্যস্ত।’

ফুটবল বা ক্রিকেট মুখ্য বিষয় নয়, হিন্দুত্ববাদী নেতাদের মূল উদ্দ্যেশ হলো- যে করেই হোক ভারতীয় সাধারণ হিন্দুদের ইসলামদের বিরুদ্ধে দাঁড় করানো। আর ভারতী হিন্দুরাও এতোটাই বর্বর যে ইসলামের বিরুদ্ধে কোন ইস্যুর সুযোগ হলেই হামলে পরে মুসলিমদের ওপর।

এভাবেই প্রোপাগান্ডা ও হিন্দুত্ববাদী নেতাদের প্ররোচনায় ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ও হাজার হাজার মুসলিমকে নির্মমভাবে শহীদ করে হিন্দুরা। এরই ধারাবাহিকতায় কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল খেলাকেও ইসলামের ও মুসলিমদের বিরুদ্ধে দাঁড় করে মুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতা চালানোর পাঁয়তারা করছে হিন্দুত্ববাদীরা।

উল্লেখ্য যে, ২০১৬ সালে হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার জাকির নায়েকের ইসলাম প্রচারকে বন্ধ করতে তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কার্যক্রম শুরু করে। তাঁর বিরুদ্ধে অর্থ পাচারসহ বিভিন্ন দেশবিরোধী কাজ ও ধর্মের নামে ঘৃণা ছড়ানোর মিথ্যা অভিযোগ আনে। জাকির নায়েকের পিস টিভি, পিস টিভি মোবাইল অ্যাপ ও ইউটিউব চ্যানেল নিষিদ্ধ করছে ভারত সরকার। এবং চলতি বছরের মার্চ মাসে জাকির নায়েক প্রতিষ্ঠিত ‘ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন’কেও ভারত সরকার বেআইনি ঘোষণা করে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ওই সংগঠনকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধও করে। এরপর থেকেই তিনি মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন।



তথ্যসূত্র:
——-
১। জাকির নায়েককে আমন্ত্রণ জানানোয় বিশ্বকাপ বয়কট করার আরজি বিজেপি নেতার-
https://tinyurl.com/3wvukvp4

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন