ফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

0
146
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

রাফাহ থেকে ফিলিস্তিনি জনসাধারণকে উচ্ছেদ এবং ‘অবশিষ্ট হামাস ব্যাটালিয়ন’কে পরাজিত করার ব্যাপারে জায়োনিস্ট বাহিনীকে পরিকল্পনা সাজাতে বলেছে নেতানিয়াহু।

রাফাহতে ইসরায়েল হামলা চালালে সেখানে সর্বনাশা পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

নাসের হাসপাতালের বাহিরে অন্তত ২১ জন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি স্নাইপাররা। নিহতদের মধ্যে হাসপাতালের কর্মীরাও আছে।

আল-আমাল হাসপাতালে স্টাফ ও রোগীদের গ্রেফতার করছে ইসরায়েলি বাহিনী। এমন তথ্য জানিয়েছে ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

জাতিসংঘের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গাজায় ৫ বছরের কম বয়সী ১০ ফিলিস্তিনি শিশুর মধ্যে অন্তত ১ জন তীব্র অপুষ্টিতে ভুগছে।

গাজায় জায়োনিস্ট বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত ২৭,৯৪৭ জন ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছেন ৬৭,৪৫৯ জন।

গাজা শহরের পশ্চিমে আল-কাতিবা এলাকায় অনুপ্রবেশের সময় এক দল জায়োনিস্ট বাহিনীকে মর্টার শেল হামলা চালিয়ে ধ্বংস করেছেন।

খান ইউনিসের আবাসান এলাকায় একদল জায়োনিস্ট সৈন্যের উপর অ্যান্টি পার্সনেল বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত করেছে আল-কাসসাম ব্রিগেডের মুজাহিদগণ। এতে ৭ জায়োনিস্ট সৈন্য নিহত হয়েছে। মুজাহিদগণ হামলা শেষে ঘাঁটিতে নিরাপদে ফিরে এসেছেন।

গাজায় আগ্রাসন চালানোর পর থেকে জায়োনিস্ট বাহিনীর অন্তত ৫৬৪ সৈন্যকে নিহত করেছেন আল-কাসসাম ব্রিগেডের মুজাহিদগণ। আহত করেছেন আরও অন্তত ২৮৪০ সৈন্যকে। কিন্তু হাসপাতালগুলোর সূত্র জানায়, ৬৫০০-এরও অধিক জায়োনিস্ট সৈন্য আহত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধআফগানিস্তানে জাতীয় প্রতিরক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২৩৫ জন শিক্ষার্থীর স্নাতক সম্পন্ন
পরবর্তী নিবন্ধবাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত তিন