‘মুহাম্মাদকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা আমাদের ইতিহাসের অংশ’- শার্লি এবদো

4
970
‘মুহাম্মাদকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা আমাদের ইতিহাসের অংশ’- শার্লি এবদো

মহানবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে তৈরি করা ব্যঙ্গচিত্র পুনঃপ্রকাশ করেছে ফ্রান্সের বিকৃত ও সন্ত্রাসবাদী চিন্তার পত্রিকা শার্লি এবদো। শার্লি এবদো অনেকদিন ধরেই মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে কটুক্তি করে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে আসছে। শার্লি এবদোর সম্পাদক Laurent “Riss” Sourisseau-এর কথায় বোঝা যায় তারা রাসূলুল্লাহর প্রতি কতোটা ঘৃণা পোষণ করে। দম্ভভরে সে বলে, ‘মুহাম্মাদকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা আমাদের ইতিহাসের অংশ। ইতিহাস মুছে ফেলা যায় না। নতুন করে লিখাও যায় না। (মুহাম্মাদকে ব্যঙ্গ করার ক্ষেত্রে) আমরা কখনোই পিছু হটবো না, আমরা কখনোই হাল ছেড়ে দেবো না।’ [১,২]

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের এ ঘৃণ্য কাজে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতাও পেয়েছে তারা। বাকস্বাধীনতার নামে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে অঙ্কিত ব্যঙ্গচিত্র ছাপানোর অনুমতি প্রদান করেছে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রন। সে বলেছে, ‘সাংবাদিকের সিদ্ধান্ত এবং নিউজরুমের পছন্দ নিয়ে কখনোই প্রেসিডেন্টের মন্তব্য করা উচিত নয়। এর কারণ, আমাদের দেশ সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী।’[3]

এভাবে মুসলিম জাতিকে আক্রমণ করার নীতিকে বাক-স্বাধীনতা, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা বলে সমর্থন করছে কাফিরদের নেতারা। এমনকি, সাধারণ কাফিররাও চরম সীমালঙ্ঘনকারী এ পত্রিকাকে সমর্থন করছে। শার্লি এবদোর ফেসবুক পেজে করা একটি পোস্টে বাকস্বাধীনতার নামে কুফফারগোষ্ঠীর চরম ইসলামবিদ্বেষের বহিঃপ্রকাশ নজরে পড়ে। [৪] এভাবে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় ছত্রছায়ায় ইসলামের বিরুদ্ধে লেগেছে শার্লি এবদোর মতো ইসলামবিদ্বেষী বিকৃত চেতনার পত্রিকাগুলো।

অন্যদিকে, যে সকল মুসলিমরা এসব সন্ত্রাসী ইসলামবিদ্বেষীদেরকে তাদের প্রাপ্য বুঝিয়ে দেন, তথাকথিত মুসলিম নেতারা তাদেরকে বন্দী করে, হত্যা করে। এমনকি আলেমরাও ঐসকল বীরদের পক্ষে কথা বলে না, বরং কেউ কেউ তো কাফিরদের সুরে সুর মিলিয়ে মুজাহিদগণকে ‘জঙ্গী’, ‘উগ্রপন্থী’ ইত্যাদি নামে আখ্যায়িত করে। এমন অবস্থায় রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সম্মানের বিরুদ্ধে কাফিররা যে আক্রমণ বাড়িয়ে দিয়েছে, এ নিয়ে অবাক হওয়ার কিছু আছে?

উল্লেখ্য যে, ২০১৫ সালের ৭ই জানুয়ারী ফ্রান্সের প্যারিসে অবস্থিত সন্ত্রাসবাদী পত্রিকা শার্লি এবদোর হেডকোয়ার্টারে হামলা চালিয়েছিলেন দুইজন বীর মুসলিম। শরীফ কোয়েশি ও সায়িদ কোয়েশি নামের দুই ভাই এ হামলা চালান। আল-কায়েদা আরব উপদ্বীপ শাখা এবং শাইখ আনোয়ার আল-আওলাকি রহিমাহুল্লাহ এর নির্দেশে হামলাটি চালানো হয়েছিলো। হামলায় শার্লি এবদোর কুখ্যাত কিছু কার্টুনিস্টসহ মোট ১২ জনকে হত্যা করে তাদের প্রাপ্য বুঝিয়ে দেন মুজাহিদগণ। এ ঘটনায় আহত হয়েছিল আরো ১১জন।

রেফারেন্স:

[১] Charlie Hebdo: Magazine to republish Prophet Mohammed cartoons as attack trial begins; ২রা সেপ্টেম্বর, স্কাই নিউজ; https://tinyurl.com/yyodvaej
[২] Charlie Hebdo to republish Prophet Muhammad cartoons to mark 2015 attack trial; ১লা সেপ্টেম্বর, ইভেনিং স্ট্যান্ডার্ড; https://tinyurl.com/yy9vygvn
[৩] France’s Macron refuses to condemn Charlie Hebdo cartoons of Prophet Muhammad; ১লা সেপ্টেম্বর, ডয়েচে ভেলে; https://bit.ly/3lOer9v

[৪] শার্লি এবদো ফেসবুক পোস্ট, ১লা সেপ্টেম্বর; https://bit.ly/320YhSw

4 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন