নাইজারে আল কায়েদার বিরুদ্ধে বিমান ও সাঁজোয়া যান ব্যবহার করবে স্যেকুলার তুরষ্ক

ত্বহা আলী আদনান

3
1303
নাইজারে আল কায়েদার বিরুদ্ধে বিমান ও সাঁজোয়া যান ব্যবহার করবে স্যেকুলার তুরষ্ক

নাইজারে ক্রমবর্ধমান ইসলামিক প্রতিরোধ বাহিনী আল-কায়েদার বিজয় অভিযান রুখতে চায় তুরষ্ক! এই লক্ষ্যে দেশটির ক্ষমতায় বসে থাকে ফ্রান্সের পুতুল সরকারকে আকাঁশ ও স্থলপথে সহায়তা করবে এরদোয়ান।

জানা গেছে যে, সেক্যূলার তুরস্ক নাইজারের সাথে Bayraktar TB2 সশস্ত্র মনুষ্যবিহীন আকাশযান, প্রশিক্ষণ বিমান HÜRKUŞ এবং স্থল পথে অভিযান পরিচালনা করতে সাঁজোয়া যান দিয়ে সহায়তা করতে একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

এসব যুদ্ধবিমান, প্রশিক্ষণ বিমান ও সাঁজোয়া যান নাইজারে আল-কায়েদা শাখা জেএনআইএম-এর বিজয় অভিযান রুখতে ব্যবহার করা হবে বলে জানা গেছে। আর এসব যুদ্ধবিমানের মাধ্যমে প্রতিবেশী দেশ মালি থেকে এসে নাইজারে আল-কায়েদার অবস্থানে হামলা চালানো হবে বলে সূত্র জানায়।

গত ২০ নভেম্বর দেওয়া বিবৃতিতে, প্রেসিডেন্সির যোগাযোগ অধিদপ্তর বলেছে যে, তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান নাইজারের রাষ্ট্রপতি মুহাম্মাদ বাজুমের সাথে তার বৈঠক সুসম্পন্ন করেছে। যেখানে তুরস্ক-নাইজার সম্পর্ক এবং আঞ্চলিক যুদ্ধপরিস্থিতী মোকাবেলা করা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। তুরষ্কের দেওয়া এসব বিমান ও সাঁজোয়া যান আল-কায়েদার বিরুদ্ধে নাইজারের সামরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করবে বলে মনে করছে তারা।

সেক্যূলার তুরষ্কের রাষ্ট্রপতি রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান একদিকে মুখে ইসলামের কথা বলে মুসলিমদের ধোঁকা দিচ্ছে, অপরদিকে বিশ্বব্যাপী ইসলাম ও মুসলিমদের সাথে যুদ্ধরত শত্রুদের পক্ষ নিয়ে প্রতিটি যুদ্ধক্ষেত্রে ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধাদের আক্রমণ করছে। সেটা হোক ইরাক-সিরিয়ায়, কিংবা আফগানিস্তান-সোমালিয়া, অথবা পশ্চিম আফ্রিকায়।

সাহেল আফ্রিকার মালি, বুর্কিনা-ফাসো, চাদ ও নাইজারে একদিকে ইসলাম ও মুসলিমের শত্রু সন্ত্রাসী ফরাসি দখলদার ও তার মিত্ররা আল্লাহ্‌র সৈনিক মুজাহিদদের হালায় দিশেহারা হয়ে লেজ গুটিয়ে পালাচ্ছে, আরেকদিকে সেই শত্রুদের জায়গা এখন গ্রহণ করছে স্যেকুলার তুরস্ক। পশ্চিমা প্রভুদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে সে এখন ঐ দেশগুলতে ইসলাম ও মুসলিমদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছে।

3 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন