ক্রুসেডারদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের পাশে দাঁড়িয়েছে আশ-শাবাব

ত্বহা আলী আদনান

2
829
ক্রুসেডারদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের পাশে দাঁড়িয়েছে আশ-শাবাব

সোমালিয়ার আশ-শাবাবের দুর্দান্ত বিজয় অভিযান রুখতে ব্যর্থ হওয়ার জেরে জনসাধারণের বাড়িঘরে হামলা চালাচ্ছে ক্রুসেডার বাহিনীগুলো। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে অনেক পরিবার। আর এসব ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের পাশে দাড়িয়ে তাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মুজাহিদগণ।

সম্প্রতি এমনই একটি হামলার শিকার হন শাবেলি রাজ্যের জানালি জেলার কয়েকটি পরিবার। যারা দখলদার উগান্ডান বাহিনীর ভারী গোলাবর্ষণের শিকার হয়েছেন।

সূত্র মতে, ক্রুসেডার উগান্ডার সেনারা তাদের জানালি ঘাঁটি থেকে গ্রামটিতে মর্টার নিক্ষেপ করে। যা সাধারণ মানুষ, গবাদি পশু এবং বাড়িঘরে আঘাত করে। এতে পাঁচ নারী ও তিন শিশু নিহত হন। ক্রুসেডারদের বর্বরোচিত এই হামলার ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে উক্ত ঘাঁটিতে আশ-শাবাব মুজাহিদিনরাও গোলাবর্ষণ করেন। যার ফলশ্রুতিতে দখলদার বাহিনী ব্যপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়।

এদিকে শাবেলি রাজ্যে হারাকাতুশ শাবাবের নিয়োজিত গভর্নর আবু আবদুর রহমান এর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের প্রতি সমবেদনা জানাতে গ্রামে পৌঁছেন। এসময় তারা দখলদারদের বোমা হামলার শিকার পরিবারগুলোর একটি আদমশুমারি তৈরি করেন। এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য ইমারার খরচে হাসপাতালে ভর্তি করেন। বাকিদেরকে তাদের ক্ষয়ক্ষতি অনুপাতে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। যাতে করে তাঁরা নিজেদের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে এবং বাড়িঘর মেরামত করতে পারেন।

এভাবেই ধাপে ধাপে সোমালিয়া ও পূর্ব আফ্রিকায় একটি পুরনাঙ্গ ইসলামি ইমারত কায়েমের পথে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন হারাকাতুশ-শাবাব মুজাহিদিন। যা পৃথিবীর বুকে দ্বীন কায়েমের একটি অনন্য নজির হয়ে থাকবে বলে মনে করেন ইসলামি চিন্তাবীদগণ।

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন