ব্রেকিং নিউজ || তুর্কি সামরিক সেন্টার উড়িয়ে দিল আশ-শাবাব: হতাহত ৭২ এরও বেশি

ত্বহা আলী আদনান

2
1025

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিশুতে একটি সামরিক ঘাঁটিতে শক্তিশালী বোমা হামলার ঘটনায় ৩২ এর বেশি সৈন্য নিহত হয়েছে। ঘাঁটিটিতে দখলদার তুর্কি সামরিক কমান্ডাররা গাদ্দার সোমালি সেনাদেরকে দীর্ঘদিন ধরে প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছিলো।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ সেপ্টেম্বর সকালে রাজধানী মোগাদিশুর ওয়াদাজির জেলায় বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছে। যা দখলদার তুর্কি কমান্ডারদের দ্বারা পরিচালিত “নানা” সামরিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র লক্ষ্য করে চালানো হয়েছে। যেখানে গাদ্দার মোগাদিশু প্রশাসনের বিভিন্ন সামরিক ইউনিট, বিশেষ করে তুর্কি-সমর্থিত কুখ্যাত গরগর বাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছিল। যেই কারণে হামলার সময় ঘাঁটিটিতে কয়েক শতাধিক সোমালি সেনার উপস্থিত ছিলো। যার ফলশ্রুতিতে আশ-শাবাবের ঐ হামলায় শত্রুদের ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের সংখ্যাও ছিলো অনেক।

শাহাদাহ এজেন্সির তথ্যমতে, বরকতময় এই হামলায় ৩২ এরও বেশি গাদ্দার সৈন্য নিহত এবং আরও ৪০ এরও অধিক সৈন্য আহত হয়েছে।

আশ-শাবাব সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, বরকতময় এই হামলাটি একজন ইস্তেশহাদী মুজাহিদ একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের মাধ্যমে আঞ্জাম দিয়েছেন। যিনি সদ্য “সৈয়দ মুহাম্মদ আবদুল্লাহ হাসান” সামরিক ক্যাম্পের ইস্তেশহাদী কমান্ডো ফোর্স থেকে স্নাতক হয়েছেন। যেই ক্যাম্প থাকে আরও ৪ শতাধিক মুজাহিদ “ইস্তেশহাদী কমান্ডো ফোর্স” থেকে স্নাতক হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্র আরও যোগ করেছে যে, আশ-শাবাবের সদ্য স্নাতক ইস্তেশহাদী কমান্ডো ফোর্স থেকে এটিই প্রথম শহিদী হামলা। অর্থাৎ সদ্য স্নাতক এই কমান্ডো ফোর্সের আরও ৩৯৯ জন মুজাহিদও শহিদী হামলার জন্য অপেক্ষমাণ আছেন, ইনশাআল্লাহ্‌।

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন