ফের বাংলাদেশিকে খুন করলো বিএসএফ; বিজিবি ব্যস্ত বিএসএফের সাথে ভলিবল খেলায়

মুহাম্মাদ ইব্রাহীম

1
737
নিহত বাংলাদেশি যবকের বাড়িতে লাশ দেখতে আসা জনতা- ছবি: নয়া দিগন্ত।

গত ১৩ নভেম্বর এক বাংলাদেশি কৃষককে ধরে নিয়ে ঠান্ডা মাথায় খুন করে সন্ত্রাসী বিএসএফ। ১৭ নভেম্বর লাশ ফেরত দেওয়া হবে বলে বিজিবিকে বৈঠকে প্রতিশ্রুতি দিলেও এখন পর্যন্ত লাশ ফেরত দেয়নি সন্ত্রাসী বিএসএফ।

এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের আরেক বাংলাদেশিকে খুন করেছে সন্ত্রাসী বিএসএফ। ২৭ নভেম্বর লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের নির্যাতনে সাদ্দাম হোসেন নামে বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তাকে চরম নির্যাতন করে। পরে নিহত ভেবে আহত সাদ্দামকে সীমান্তে ফেলে রেখে চলে যায়। স্থানীয়রা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোনাবেরুল হক মোনা জানান, তিনি লাশ দেখেছেন। শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

একের পর এক বাংলাদেশিদের ধরে ঠান্ডা মাথায় খুন করার মত উগ্র সন্ত্রাসী আচরণের পরও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ্য থেকে কোন প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। উল্টো ভারতের তুষ্টি অর্জনে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিজিবি ব্যস্ত রয়েছে বিএসএফের সাথে ভলিবল খেলায়।

নির্জজ্জ বিজিবি ভারতীয় সন্ত্রাসী বাহিনী থেকে বিজয়ের উপহার নিচ্ছে- ছবি: ইত্তেফাক।

২২ নভেম্বর কুড়িগ্রামের রৌমারীর স্থলবন্দরের জিরো পয়েন্টে আয়োজিত এ খেলায় অংশ নেয় নির্লজ্জ বিজিবি। বাংলাদেশীদের নিরাপত্তা দিতে না পারলেও ভিলিবল খেলায় জিতে খুব উতফুল্ল মেজাজে রয়েছে নির্লজ্জ বিজিবি। এ ধরনের খেলায় বিজিবির অংশ নেয়া হচ্ছে কাঁটাতারে ঝুলন্ত ফেলানি সহ সন্ত্রাসী বিএসএফ এর হাতে নিহত সকল বাংলাদেশিদের সঙ্গে উপহাসেরই নামান্তর।



তথ্যসূত্র:
——–
১। লালমনিরহাট সীমান্তে বিএসএফের নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু
https://tinyurl.com/4mw54t6r
২। ১৪ দিন ধরে বাবার লাশের অপেক্ষায় চার সন্তান
https://tinyurl.com/5etazr9e
৩। রৌমারী সীমান্তে ভলিবল খেলায় বিএসএফকে হারালো বিজিবি
https://tinyurl.com/3sdv74ee

১টি মন্তব্য

  1. বিএসএফ যে সত্যি সন্ত্রাসী তাতে কোন সন্দেহ নেই কারণ আমরা ভারত ও বাংলাদেশ সীমান্তের মাঝামাঝি স্থানে বসবাস করি এখানে বিনা কারণে বিএসএফ যে কত অত্যাচার করে সেটা আমরাই ভাল হবে জানি।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন